Oil vs Serum: তেল না সিরাম? চুলের সমস্যার সমাধান করতে কাকে বেছে নেবেন

By | June 1, 2022


Hair Care: তেল না সিরাম কোনটি চুলের ক্ষেত্রে বেশি উপকারী- এই উত্তর জানার জন্য আপনাকে পণ্য দুটি সম্পর্কে বিশদে জানতে হবে।

ঘন, লম্বা, সুন্দর চুলের বাসনা সকলের মনেই থাকে। আর এই কারণেই আমরা হাজার একটা চুলের পণ্য ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু হরেক রকম উপাদান যে সেরা কাজ দেবে এর কোনও অর্থ নেই। তবে চুলের প্রসাধনী পণ্য হিসেবে ব্যাপক ভাবে ব্যবহৃত হয় চুলের তেল ও হেয়ার সিরাম। শ্যাম্পুর করার আগে তেলের ব্যবহার আর শ্যাম্পুর করার পর সিরাম- এটাই এখন বাধা ধরা রুটিন হয়ে গিয়েছে। যাঁরা নিয়মিত চুলের যত্ন নেন না তাঁরাও কিন্তু শ্যাম্পুর সময় এই নিয়ম মেনে চলেন। তবে এই ক্ষেত্রে চুলে তেল ব্যবহার যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। আয়ুর্বেদ থেকে শুরু করে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরাও চুলে তেল ব্যবহার করার উপকারিতা নিয়ে সচেতন। অন্যদিকে, সিরামের ব্যাপক ব্যবহার তুলনামূলক ভাবে অনেকটা নতুন। হাল ফ্যাশনের যুগে এখন মানুষ সিরামের ব্যবহার শিখেছে। আর উপকারও পেয়েছে অনেক। কিন্ত তেল না সিরাম কোনটি চুলের জন্য বেশি ভাল- এই প্রসঙ্গ এলে কাকে বেছে নেবেন?

তেল না সিরাম কোনটি চুলের ক্ষেত্রে বেশি উপকারী- এই উত্তর জানার জন্য আপনাকে পণ্য দুটি সম্পর্কে বিশদে জানতে হবে। সিরাম চুলের বাইরে স্তরে এক ধরনের পাতলা আস্তরণ তৈরি করে। এই আস্তরণ আমাদের চুলকে বাইরের ধুলো, বালি, দূষণ, রোদকে সুরক্ষিত রাখে। অনেক সময় শ্যাম্পু করার পর চুল তার প্রাকৃতিক তেল হারিয়ে ফেলে। এটা বিশেষত তৈলাক্ত চুলের ক্ষেত্রে ঘটে। এখানেই সিরাম চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। নিস্তেজ চুলে প্রাণ জোগায় হেয়ার সিরাম। নিস্প্রাণ চুলে তাৎক্ষনিক উজ্জ্বলতা এনে দেয় হেয়ার সিরাম। এর পাশাপাশি চুল ভেঙে যাওয়ার সমস্যাকে রোধ করে এবং সহজে চুলে জোট পড়তে দেয় না।

অন্যদিকে, চুলে তেলের ব্যবহার আমাদের দেশে প্রাচীনকাল থেকে চলে আসছে। এই প্রসঙ্গ আলাদা করে কিছু না বলার থাকলেও তেলের বিকল্প আজ অবধি কখনও কিছু হয়নি। বিভিন্ন ফ্যাটি অ্যাসিড ও প্রাকৃতিক উপাদানে ভরপুর হয় তেল, যা চুলকে ভিতর থেকে পুষ্ট করে তোলে। এতে চুলের যাবতীয় সমস্যার সমাধান হয়। ক্ষতিগ্রস্থ চুলের স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করা থেকে শুরু করে চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে হেয়ার অয়েল। সামান্য নারকেল তেলে যদি কয়েকটা ভেষজ ফেলে দেন তাহলে এর গুণ আরও বেড়ে যায়। এই তুলনায় সিরাম অনেকটাই পিছনে।

সিরামে সেই অর্থে প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহার খুব কম। এটি একটি রাসায়নিক সংমিশ্রণ। অন্যদিকে তেল পুরোটাই প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি। কিন্তু সবার চুল এক রকম হয় না। তাই চুলের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী পণ্য বেছে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

যদি চুলকে ভিতর থেকে পুষ্ট করতে চান তাহলে হেয়ার অয়েলই সেরা। চুল পড়া রোধ, চুলের বৃদ্ধি ঘটানো, খুশকির সমস্যা দূর করা, চুলকে ঘন করে তোলা- এই সব কিছুর জন্য তেল ব্যবহার করুন। আর যদি চুলে তাৎক্ষণিক উজ্জ্বলতা পেতে চান, চুলের জট ছাড়াতে চান তাহলে সিরাম ব্যবহার করুন।

এই খবরটিও পড়ুন



প্রতিদিন চুলে ও স্ক্যাল্পে তেল মালিশ করলে দারুণ উপকার পাওয়া যায়। আর নিয়মিত তেল মাখলে পরদিন শ্যাম্পু করাও জরুরি। এতে চুলে জমে থাকা অতিরিক্ত তেল ও ময়লা দূর হয়ে যায়। তখন চুল নিষ্প্রাণ দেখায়। তাই শ্যাম্পু করার পর শুধু চুলে সিরাম লাগান। স্ক্যাল্পে সিরাম লাগাবেন না। সব মিলিয়ে রুটিনমাফিক তেল ও সিরাম ব্যবহার করলে চুল ভাল থাকবে।



Source link