Hooghly Rail Bridge: ‘ছিনতাই করেছেন মুখ্যমন্ত্রী’,ফের কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত তুঙ্গে

By | June 4, 2022


মমতাকে তোপ শুভেন্দুর

Hooghly Rail Bridge: মমতাকে জবাব দিতে সিঙ্গুরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও রেলমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানো হবে বলে উল্লেখ করেছেন শুভেন্দু।

হুগলি: রেলের টাকায় তৈরি ওভারব্রিজ, অথচ রেল তথা কেন্দ্রের কোনও প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এই অভিযোগে ফের সামনে এসেছে কেন্দ্র- রাজ্য সংঘাত। শুক্রবার হুগলির কামারকুণ্ডুতে যে উড়ালপুলের উদ্বোধন করেছেন মমতা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক। কেন্দ্রকে কৃতিত্ব না দেওয়ার অভিযোগ তুলে মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বঙ্গ বিজেপির নেতা-নেত্রীরা। সেই ইস্যুতেই এবার মুখ খুললেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি জানিয়েছেন, যে জায়গায় দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী উড়ালপুল উদ্বোধন করেছেন, সেখান থেকেই প্রধানমন্ত্রী ও রেলমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করবে বিজেপি।

সিঙ্গুরের ওই উড়ালপুল রেলের সম্পত্তি, এমনটাই দাবি করে শুভেন্দু অধিকারী উল্লেখ করেন, ওখানকার সাংসদ লকেট চট্টপাধ্যায় এ ব্যাপারে উদ্যোগী ছিলেন। রেল এখানে টাকা খরচ করেছে। মুখ্যমন্ত্রী সে সব অস্বীকার করছেন। প্রচার করে মিথ্যা বলা হচ্ছে বলেও দাবি করেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ‘রেলের প্রকল্প ছিনতাই করেছেন মুখ্যমন্ত্রী’। আগামী ১০ তারিখ ওই জায়গা থেকেই প্রধানমন্ত্রী ও রেলমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন দিবস পালন করা হবে বলেও জানিয়েছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। শুক্রবার সন্ধ্যায় বর্ধমানে গিয়ে এ কথা জানান শুভেন্দু।

একই সঙ্গে শুভেন্দু মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি উল্লেখ করেন, রেলের পরিকল্পনা, উন্নয়ন, সাংসদ সবাইকে অস্বীকার করে উনি রেলের প্রকল্প ছিনতাই করছেন। ঠিক যে ভাবে উনি এর আগে অনেক কেন্দ্রীয় প্রকল্পকে নিজের প্রকল্প বলে চালিয়েছেন। পাশাপাশি সিঙ্গর প্রসঙ্গে শুভেন্দু দাবি করেন, ওখানকার যুবকদের আশা ভরসা সব শেষ হয়ে গিয়েছে। ২০১৭ তে সরষে চাষ, তারপর কিছুদিন আগে মাছ চাষ, সবেতেই মুখ্যমন্ত্রী ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এই খবরটিও পড়ুন



শুক্রবার কামারকুণ্ডু উড়ালপুল উদ্বোধন হওয়ার আগেই হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্য়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন। তিনি উল্লেখ করেন ওই প্রকল্পের জন্য সব মিলিয়ে প্রায় ২৬ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্র আর রাজ্য দিয়েছে ১৮ কোটি। তারপরও সব প্রচারে কেন মমতা নিজের নাম ব্যবহার করেছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন লকেট। তবে তৃণমূলের দাবি, যে প্রকল্পে রাজ্যও খরচ করেছে, তা উদ্বোধন করতেই পারেন মুখ্যমন্ত্রী, এতে বিতর্কের কোনও কারণ নেই।



Source link