Diabetes: গরমে ডায়াবিটিস বেড়েছে? নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেনে চলুন এই ৫টি টিপস…

By | April 13, 2022


জানুন কী ভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখবেন

গরমের দিন সুস্থ মানুষই সহজে অসুস্থ হয়ে পড়েন আর সেখানে যাঁদের ডায়াবিটিসের সমস্যা রয়েছে তাঁদের আরও অনেক বেশি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়। গরমে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকে। ঘাম বেশি হয়। ফলে শরীর কিন্তু সহজেই ক্লান্ত হয়ে পড়ে। খুব বেশি গরম ডায়াবিটিসের রোগীরা মোটেই সহ্য করতে পারেন না। দীর্ঘক্ষণ ঘরমের মধ্যে থাকলে তাঁদের শরীরেও কিন্তু একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও গরমে ডায়াবিটিসের রোগীদের রক্তশর্করার মাত্রাও কিন্তু তুলনামূলক ভাবে বেশি থাকে। স্বাভাবিক ভাবে তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি হলেই তার সঙ্গে মানিয়ে নিতে কষ্ট হয় ডায়াবিটিসের রোগীদের। আর সেই মাত্রা যখন ৩৯ পেরিয়ে যায়, তখন কিন্তু গরম সহ্য করা মুখের কথা নয়। যে কারণে গরমের দিনে মধুমেহ রোগীদের নিয়মিত ভাবে সুগার পরীক্ষা করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

গরমে সব সুগার রোগীদেরই যে সব সমস্যা হয়-

অকার্যকর ঘাম গ্রন্থি- নিয়মিত ভাবে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেশি থাকলে রক্তনালী এবং স্নায়ুর ক্ষতি হয়। রক্তনালীর উপর বেশি পরিমাণ চাপ পড়ে। শরীরের প্রায় প্রতিটি অঙ্গই ঘর্মগ্রন্থি সেই সঙ্গে উর্চ্চ রক্তশর্করার প্রভাবও কিন্তু পড়ে। এবার ঘাম বেশি হলে শরীর দ্রুত ঠান্ডা হতে থাকে। অকার্যকর ঘর্মগ্রন্থিগুলি তা মোটেই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে না। যে কারণে ডায়াবিটিসের রোগীদের খুব বেশি গরমে বা অতিরিক্ত আর্দ্রতার মধ্যে থাকলে একাধিক সমস্যা আসে।

ঘন ঘন মূত্রত্যাগ- ডায়াবিটিসের রোগীদের আরও একটি সমস্যা হল ঘন ঘন মূত্রত্যাগ। কারণ রক্তে চিনির পরিমাণ বেড়ে গেলে কিডনি তখন ঠিকমত কাজ করতে পারে না। ছাঁকনির প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। ফলে তখন অতিরিক্ত গ্লুকোজ প্রস্রাবের মাধ্যমে শরীরের বাইরে বেরিয়ে আসে। এর ফলে কিন্তু ডিহাইড্রেশনেরও সমস্যা হয়।

ইনসুলিন- শরীরের তাপমাত্রার সমতা বজায় না থাকলে কিন্তু ইনসুলিন মোটেও ঠিক করে কাজ করে না। সেখান থেকে আসে একাধিক সমস্যা। আর তাই এ ব্যাপারেও সচেতন থাকতে হবে। খুব গরম বা খুব বেশি আর্দ্রতায় কিন্তু এই সমস্যা স্বাভাবিক

গ্রীষ্মকালে তাই যে সব নিয়ম অবশ্যই মেনে চলবেন-

গরমকালে ঘাম বেশি হয়। আর তার কারণেই কিন্তু শরীর থেকে গুরুত্বপূর্ণ খনিজ উপাদান বেরিয়ে যায়। শরীরে সোডিয়াম-পটাশিয়ামের ঘাটতি দেখা যায়। সেই সঙ্গে অতিরিক্ত তাপ জনিত একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। আর তাই ডায়াবিটিসের রোগীদের জটিল কোনও শারীরিক সমস্যা এড়াতে কিন্তু বেশিবার করে এবং বেশি পরিমাণে জল খেতে হবে। এই সময় অনেকেরই পেটের সমস্যা রয়েছে এরকম মানুষেরাও কিন্তু ভালই সমস্যায় পড়েন। আর তাই কফি এড়িয়ে চলুন। বরং বাইরে বেরোলে লেবুর জল, ডাবের জলৃ তেষ্টা মেটানোর জন্য এসব চলতে পারে। যাঁরা নিয়মিত ওষুধ খান তাঁরা অবশ্যই জানবেন যে, কী ভাবে ওষুধ সংরক্ষণ করতে হয়। সন সময় ওষুধ এমন ভাবে রাখুন যাতে সূর্যের আলে কম আসে। সেই সঙ্গে অতিরিক্ত বরফের মধ্যেও কিন্তু রাখবেন না। এতে ওষুধ নষ্ট হয়ে যায়। প্রয়োজন ছাড়া রোদে বেরোবেন না। আরামদায়ক পোশাক পরুন। স্ট্রেসমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।



Source link