Coronavirus Symptom: প্রায়শই পেটের গন্ডগোল ? কোভিডের কারণে নয় তো…

By | March 28, 2022


কোভিড পরবর্তী পেটের নানা সমস্যা খুবই সাধারণ

কোভিড পরবর্তী সময়ে অনেকেই নানা সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। কেউ তা বুঝে উঠতে পেরেছেন, আবার কেউ তা পারেননি। এমনও অনেকের ক্ষেত্রে হয়েছে যাঁরা কোভিডে আক্রান্ত কিনা তাই বুঝে উঠতে পারেননি। করোনার আক্রমণ প্রাথমিক ভাবে শ্বাসযন্ত্রের উপর হলেও পরবর্তীতে তা কিন্তু মোটেই সেখানে সীমাবদ্ধ ছিল না। বরং তা একই সঙ্গে প্রভাবিত করেছিল অন্ত্রকেও। আর তাই বেশ কয়েকটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে ওমিক্রমের প্রাথমিক রোগ লক্ষণে বেশ কিছু বদল এসেছে, যে কারণে ওমিক্রনের প্রাথমিক উপসর্গ দেখে চট করে রোগ শনাক্তকরণ কিন্তু বেশ কঠিন ছিল।

আমেরিকায় বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে, স্টিলথ ওমিক্রণ বা BA.2 ভেরিয়েন্ট নাকের পরিবর্তে অন্ত্রকে প্রভাবিত করে। যে কারণেই শ্বাসনতন্ত্রের পরিবর্তে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি তখন হয় পরিপাকতন্ত্রের। সেখান থেকে বমি, ডায়েরিয়া, খাবার হজম না হওয়া সমেত একাধিক সমস্যা হয়। আর RT-PCR টেস্টে কিন্তু তা মোটেই ধরা পড়ে না। গত জানুয়ারি মাসে ওমিক্রনের দাপটে প্রচুর মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় নভেম্বরের একেবারে এই শেষের দিকে এই ভাইরাস প্রথম ধরা পরে। পরবর্তীতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ভাইরাসকে করোনার ভ্যারিয়েন্ট বলার পর তা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। সকলেরই হালকা উপসর্গ ছিল। ফলে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন পড়েনি। সকলেই বাড়িতে থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এমনকী মৃত্যুর সংখ্যাও প্রায় নেই বললেই চলে। কিন্তু এই বমি বমি ভাব, পেটে ব্যথা, ঘন ঘন অম্বল, শরীরে ফোলা ভাব এসবও কিন্তু কোভিডেরই লক্ষণ।

যাঁদের করোনা হয়েছিল তাঁরা দুজনেই কিন্তু পেট ব্যথার বিভিন্ন পরীক্ষা করিয়েছেন। আর তাই যাঁদের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এবং সেই সঙ্গে পেটের কোনও সমস্যা থাকে তাহলে চিকিৎসকরা দুটি গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দেন। প্রখম হল স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, প্রচুর পরিমাণে জল খাওয়া এবং কম মশলাদার ও ফ্যাট ফ্রি খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন। শরীরের জন্য যথাযথ টিক্সিফিকেশন জরুরি। যে কারণে বেশি পরিমাণে জল খেতে বলা হয়। কারণ শরীর থেকে জলের পরিমাণ কমে গেলে ডিহাইড্রেশনের সমস্যা হতে পারে। তবে বর্তমানে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে ওমিক্রনের BA.2 ভ্যারিয়েন্টটি। উপসর্গ একই রকম হলেও সেই সঙ্গে জ্বর, ক্লান্তি, গলা ব্যথা, কাশি, পেশির ক্লান্তি, দ্রুত হৃৎস্পন্দন এসব লেগেই থাকে।

পেটের সমস্যার সঙ্গে কোভিডের সূক্ষ্ম যোগসূত্র রয়েইছে। তাই কোভিড পরবর্তী সময়ে বা হঠাৎ করেই যদি পেটের কোনও সমস্যা হয় তাহলে কিন্তু ধরেই নেবেন যে আপনি কোভিডে আক্রান্ত। আর তাই ২৪ ঘন্টার মধ্যে যদি সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে কিন্তু চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না। গ্যাস, অম্বল বা হজমের সমস্যা কিন্তু মোটেই ফেলে রাখবেন না।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

আরও পড়ুন: Protect your vision: চোখ জ্বালা বা ব্যথা হলে উপেক্ষা নয়, উপসর্গ বুঝে সতর্ক হোন এখনই



Source link