Bihar Drinking Rule: সুরা পানে বিপদ! মদ খেলেই মোটা জরিমানা, হতে পারে হাজতবাসও

By | April 5, 2022


ছবি- প্রতীকী চিত্র

পটনা: বিতর্ক সত্ত্বেও মহিলাদের দীর্ঘদিনের দাবি মেনে নিয়ে মদ বিক্রি ও মদ্যপানের ওপর দাঁড়ি টেনেছিল বিহারের নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) সরকার। নীতীশের সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্যজুড়ে হইচই হলেও সিদ্ধান্ত থেকে পিছনে সরে আসেননি জেডিইউ প্রধান। মদের বিরুদ্ধে অভিযান (Alcohol Prohibition) অনেকে বেশি জোরাল হয়েছিল। তবে মার্চ মাসের ৩০ তারিখ বিহার বিধানসভাতে মদ নিষিদ্ধ বিল ২০২২ পাশ হয়েছিল। সেই বিলে মদ্যপায়ীদের ‘মহাপাপী’ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। সরকারের তরফে অতিরিক্ত মুখ্য সচিব সঞ্জয় কুমার বিস্তারিত জানিয়েছেন। নতুন বিলে আরও কঠোর নিয়মের কথা বলেছে বিহার সরকার। কুমার জানিয়েছেন, এখন থেকে যদি কোনও ব্যক্তি মদ্যপান করতে গিয়ে ধরা পড়েন তবে কঠোর শাস্তি হতে পারে। তবে মদ্যপায়ীদের শাস্তি দেওয়ার ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম-কানন রয়েছে।

জানা গিয়েছে, এখন থেকে কোনও ব্যক্তি যদি মদ্যপানের সময় ধরা পড়েন তবে তাঁকে ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। তবে শুধুমাত্র এই অপরাধ করে প্রথমবার যাঁরা ধরা পড়বেন, জরিমানার নিয়ম শুধুমাত্র তাদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। সাবধান করে দেওয়ার পরও যদি সেই ব্যক্তি নিজেকে সংশোধন না করে নেন এবং পরবর্তীকালে আবার মদ্যপান করতে গিয়ে ধরা পড়েন, তবে জরিমানা দেওয়ার পাশাপাশি তাঁকে ৩০ দিনের জন্য জেলে পাঠানো হবে। দ্বিতীয়বার মদ খেতে গিয়ে ধরা পড়লে তাঁকে ১ বছরের জন্য জেলে পাঠানোর কথাও এই নয়া বিলে লেখা রয়েছে।

সোমবার বিহারের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব সাংবাদিকদের এই বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন। সারা দেশেই বিভিন্ন উৎসবে মদ্যপান অনেকাংশে বেড়ে যায়। বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি হোক বা অফিসের পর অবসর সময় কাটাতে অনেকেই অল্প বিস্তর মদ্যপান করে থাকেন। তবে ২০১৬ সালে ১ এপ্রিল থেকে বিহারে মদ নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এর আগে বিহারে মদ্যপানের অপরাধে ধরা পড়লে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হত। তবে এই নয়া নিয়মে সেই জরিমানার অঙ্ক অনেকেটাই কমল। এখন প্রতিবেশি রাজ্যে এই নয়া নিয়মের কী প্রভাব পড়ে সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আরও পড়ুন Gujarat Kidnapping: কর্মীদের মাইনে দেওয়ার জন্য মারাত্মক অপরাধ করে বসলেন রেস্তোরাঁ মালিক, হতবাক পুলিশ



Source link