‘রাতে ভয়ংকর স্বপ্ন দেখছি!’, ভয়ে মন্দির থেকে চুরি করা মূর্তি পুরোহিতকে ফিরিয়ে দিল চোরেরা

By | May 16, 2022


সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কথায় বলে, বিশ্বাসে মিলায় বস্তু…। আর সেই বিশ্বাসের জোরেই যেন ঈশ্বর নিজেই ফিরে এলেন নিজগৃহে।

মন্দির থেকে ১৬টি অষ্টধাতুর মহামূল্যবান মূর্তি সরিয়ে ছিল তারা। তারপর থেকে প্রতি রাতে খারাপ স্বপ্নেরা ভিড় জমাচ্ছে চোখে। সময়টাও ভাল যাচ্ছে না। নির্ঘাত ‘পাপে’র ফল! এই ভয়েই তাই মূর্তিগুলি ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় চোরেরা।

ঘটনা মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) চিত্রকুটের। গত ৯ মে সেখানকার বালাজি মন্দির থেকে ওই ১৬টি মূর্তি চুরি করেছিল কয়েকজন চোর। যার মূল্য কয়েক কোটি টাকা। কিন্তু চুরির পর থেকেই রাতের ঘুম উড়ে যায় চোরেদের। সদর কোতয়ালি করবির এসএইচও রাজীব কুমার সিং জানান, বালাজি মন্দিরের পুরোহিত মোহন্ত রামবালক মূর্তি চুরি যাওয়ার পরই থানায় এসে অজ্ঞাতপরিচয় চোরদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। তবে পুলিশ পুরোদমে তল্লাশি শুরুর আগেই ঘটনা নয়া মোড় নেয়।

[আরও পড়ুন: জ্ঞানবাপী মসজিদে শিবলিঙ্গ! আইনজীবীর দাবির পরই নির্দিষ্ট এলাকা সিল করার নির্দেশ আদালতের]

গতকাল অর্থাৎ রবিবার, ওই পুরোহিত বাড়ি থেকে বেরিয়েই দেখতে পান, চুরি যাওয়া ১৬টি মূর্তির মধ্যে ১৪টিই সাজিয়ে রাখা। সেই সঙ্গে রয়েছে একটি চিঠিও। সেখানেই চোরেরা জানিয়েছে, মূর্তিগুলি চুরি করার পর থেকেই ভয়ংকর সমস্ত স্বপ্ন দেখছিল তারা। রাজীব কুমার সিং জানান, মানিকপুর জওহরনগরে পুরোহিত মোহন্তর বাড়ির সামনে একটি রহস্যময় বস্তা পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাতেই সন্দেহ নয় মোহন্তর। কাছে গিয়ে দেখতেই ১৪টি মূর্তি খুঁজে পান তিনি। সেগুলিকে নিয়ে সোজা থানায় চলে যান।

মোহন্ত জানিয়েছেন, এক-একটি মূর্তি অন্তত ৩০০ বছরের পুরনো। এগুলির মধ্যে ন’টি অষ্টধাতুর। তিনটি তামা এবং চারটি পিতলের তৈরি। ছ’টি রাধা-কৃষ্ণ মূর্তি, ছ’টি বিষ্ণু এবং বাকি অন্যান্য দেবদেবীর মূর্তি চুরি গিয়েছিল। যাতে পরানো ছিল রুপোর গয়নাও। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। কিন্তু কাউকে এখনও গ্রেপ্তার করা হয়নি।

[আরও পড়ুন: ইউক্রেন যুদ্ধের জেরেই মূল্যবৃদ্ধি, ফের রেপো রেট বাড়ানোর ভাবনা রিজার্ভ ব্যাংকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link