‘মাত্র ৪২ দিন আগেই…’, সাজানো গ্রাম কীভাবে পরিণত হল মৃত্যুপুরীতে, দেখাল ইউক্রেন

By | April 7, 2022


শহরের ধ্বংসাবশেষ।

কিয়েভ: রক্তাক্ত ইউক্রেনের রাস্তা। বুচার পথেঘাটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে মৃতদেহ। গণকবর দেওয়ার মাঝেই ইউক্রেন প্রশাসনের তরফে দেশবাসীদের সতর্ক করা হল তারা যেন এই মুহূর্তেই ইউক্রেনের পূর্ব অংশ (Eastern Ukraine) ছেড়ে চলে যান। নাহলে তাদের জীবনের ঝুঁকি তৈরি হতে পারে। রাশিয়ার সেনাবাহিনী (Russian Army) কিয়েভ ও সংলগ্ন বুচা ছাড়ার পর যে নির্মম হত্যালীলার দৃশ্য ধরা পড়েছে, তা দেখেই এই সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই বুচার (Bucha) হত্যালীলার জন্য আমেরিকার তরফে রাশিয়াকে যুদ্ধাপরাধী অ্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে।

বুধবারই ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে টুইটারে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়, তাতে রুশ সেনার হাত থেকে পুনরুদ্ধার করা একটি গ্রামের ভিডিয়ো তুলে ধরা হয়েছে। ভিডিয়োয় বলা হয়, কিয়েভের বোরোডিয়াঙ্কা নামক ওই গ্রামে মাত্র ৪২ দিন আগেই ১৩ হাজার মানুষ বসবাস করতেন। কিন্তু রাশিয়ান সেনা দখল নেওয়ার পরই সেখানে কেবল ধ্বংসলীলা ও মৃত্যুই দেখা গিয়েছে। গোটা ইউক্রেনের সঙ্গেও একই কাজ করতে চেয়েছিল রাশিয়ার বাহিনী, এমনটাই দাবি করা হয়। তবে ইউক্রেনীয় সেনা লড়াই করে বোরোডিয়াঙ্কায় ফের একবার ইউক্রেনের পতাকা উত্তোলন করতেই সক্ষম হয়েছে।

রাশিয়ার উপরে আরও নিষেধাজ্ঞা:

বিনা প্ররোচনাতেই ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার জন্য আমেরিকা, ইউরোপীয় ইউনিয়নের তরফে রাশিয়ার আর্থিক অনুদানের উপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। বুচায় গণহত্যার চিত্র সামনে আসতেই ফের চটেছে পশ্চিমী দেশগুলি। তারা রাশিয়ার উপরে আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করার পরিকল্পনা করছে বলে জানা গিয়েছে। এএফপি সূত্রে জানা গিয়েছে, রাশিয়াকে যুদ্ধাপরাধী আখ্য়া দিয়ে আমেরিকা রাশিয়ার উপরে সমস্ত নতুন বিনিয়োগ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়েছে, রুশ সরকারি আধিকারিক ও তাদের পরিবারের উপরও এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে।

সতর্কবার্তা বরিস জনসনের:

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন অভিযোগ করেন যে বুচায় যে ভয়ঙ্কর হত্যালীলার দৃশ্য ধরা পড়েছে, তা গণহত্যার থেকে কম কিছু নয়। এই নৃশংসতার জন্য ব্রিটেনের তরফে রাশিয়ার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে।

গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার রাশিয়ার:

যদিও রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী সার্গেই লাভরভ জানান, বুচায় যে মৃতদেহের ছবি দেখা যাচ্ছে, তা সম্পূর্ণ ভুয়ো। মস্কো ও কিয়েভের মধ্যে যে আলোচনা শুরু হয়েছে, তা নষ্ট করে দিতেই এই ধরনের প্ররোচনা দেওয়া হচ্ছে। রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার প্রতিনিধি জানান, ইউক্রেনের সঙ্গে বিবাদ শুরু হওয়ার পর রাশিয়ার তরফে ৬ লক্ষেরও বেশি মানুষকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। এটা কোনও অপহরণ নয়, বরং সাধারণ মানুষের সদিচ্ছাতেই আশ্রয় দিয়েছে রাশিয়া।

আরও পড়ুন: Imran Khan: সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তে সুবিধাজনক অবস্থানে ইমরান খান, অনাস্থা ভোট নিয়ে শুনানি স্থগিত





Source link