‘বিদেশি মদের দাম না কমিয়ে পেট্রোপণ্যে কর কমান’, ফের বিরোধী রাজ্যগুলিকে নিশানা কেন্দ্রের

By | April 28, 2022


সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পেট্রল-ডিজেলের দাম কমানো নিয়ে কেন্দ্র রাজ্য সংঘাতে নয়া মাত্রা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) পর এবার পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী নিশানা করলেন বিরোধী দলের দখলে থাকা রাজ্যগুলিকে। পুরীর সাফ কথা, বিরোধীদের দখলে থাকা রাজ্যগুলি যদি বিদেশি মদের দাম না কমিয়ে পেট্রল ডিজেলের দাম কমাত, তাহলে ওই রাজ্যগুলির মানুষ স্বস্তি পেত।

বুধবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিরোধীদের দখলে থাকা একাধিক রাজ্যকে পেট্রল-ডিজেলের উপর চাপানো ভ্যাট কমাতে অনুরোধ জানিয়েছিলেন। গত নভেম্বর মাসে কেন্দ্র যখন পেট্রল-ডিজেলে (Petrol-Diesel) শুল্ক কমিয়েছিল, সেসময় বাংলা, তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, কেরল এবং ঝাড়খণ্ড বাদে বাকি রাজ্যগুলিও ভ্যাট কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়। বুধবার সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে মোদি বলেন, সেসময় পেট্রোপণ্যে কর না কমিয়ে অন্যায় করেছে এই রাজ্যের সরকারগুলি। তবে তখন দাম না কমালেও এখন এই সরকারগুলির রাজ্যের মানুষের কথা ভেবে কর কমানোর পথে হাঁটা উচিত বলে মন্তব্য করেন মোদি।

[আরও পড়ুন: গোয়ায় ব্যর্থতার দায় প্রশান্ত কিশোরের! দলে ছেড়ে তোপ তৃণমূলের রাজ্য সভাপতির]

যদিও প্রধানমন্ত্রীর সেই পরামর্শ সরাসরি নাকচ করিয়ে দিয়েছেন এই রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), উদ্ধব ঠাকরে, চন্দ্রশেখর রাও-রা (KCR) বলছেন, পেট্রলের দাম কমানোটা কেন্দ্রের দায়িত্ব। কারণ কেন্দ্র পেট্রল-ডিজেল থেকে রাজ্যের তুলনায় অনেক বেশি কর নেয়। নভেম্বরে প্রধানমন্ত্রী যখন রাজ্যগুলিকে পেট্রোপণ্যের দাম কমাতে অনুরোধ করেছিলেন, সেসময় কংগ্রেসের দখলে যে তিনটি রাজ্য ছিল, তারাও কর কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। সেদিক থেকে দেখতে গেলে মোদির বুধবারের আক্রমণের নিশানায় কংগ্রেস (Congress) ছিল না। তা সত্ত্বেও কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) বৃহস্পতিবার টুইট করে বিরোধী শাসিত রাজ্যগুলির পাশে দাঁড়িয়েছেন। রাহুলের বক্তব্য,”জ্বালানির দামের জন্য রাজ্যগুলিকে দোষ, কয়লার অভাবের জন্য রাজ্যগুলিকে দোষ, অক্সিজেনের সংকটের জন্য রাজ্যগুলিকে দোষ। জ্বালানিতে ৬৮ শতাংশ কর নিচ্ছে কেন্দ্র, অথচ প্রধানমন্ত্রী দাম বাড়ার দায় চাপাচ্ছেন রাজ্যগুলির উপর। প্রধানমন্ত্রীর ফেডারেলিজম সমন্বয়মূলক নয়, জবরদস্তিমূলক।”

বিরোধীদের এই সমবেত আক্রমণের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী। তাঁর বক্তব্য,”বিরোধী শাসিত রাজ্যগুলি যদি বিদেশে মদে শুল্ক না কমিয়ে পেট্রল-ডিজেলে কর কমাত, তাহলে পেট্রল-ডিজেল সস্তায় পাওয়া যেত।” পুরীর বক্তব্য, মহারাষ্ট্র ও রাজস্থান সরকার যেখানে পেট্রলে লিটারপ্রতি ৩২.১৫ টাকা এবং ২৯.১০ টাকা কর নেয়, সেখানে উত্তরাখণ্ড এবং উত্তরপ্রদেশ পেট্রলে কর নেয় মাত্র ১৪ টাকা ৫১ পয়সা এবং ১৬ টাকা ৫০ পয়সা।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link