বহু প্রতীক্ষিত গ্রুপ-সি ও গ্রুপ-ডি পদে নিয়োগে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত, ডিসেম্বরেই হবে মৌখিক পরীক্ষা, আশ্বাস ত্রিপুরা সরকারের

By | December 1, 2022


আগরতলা, ১ ডিসেম্বর (হি. স.) : ত্রিপুরায় কর্মসংস্থানের প্রশ্নে দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবশেষে অবসান হয়েছে। গ্রুপ-সি এবং গ্রুপ-ডি পদে জেআরবিটি (জয়েন্ট রিক্রুটমেন্ট বোর্ড ত্রিপুরা) ফলাফল প্রকাশ করেছে। লক্ষাধিক পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রায় ২৪ হাজার ৫০০ জন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। ডিসেম্বরের তৃতীয় এবং চতুর্থ সপ্তাহের মধ্যেই মৌখিক পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। আজ সচিবালয়ে সাংবাদিক সন্মেলনে শ্রম দফতরের মন্ত্রী ভগবান দাস একথা জানিয়েছেন। সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী দাবি করেন, রাজনীতির উর্দ্ধে উঠে ওই ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। জেআরবিটি তাতে স্বচ্ছতার নজির স্থাপন করেছে।

এদিন তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী বলেন, জেআরবিটি-র ফলাফল নিয়ে সারা দেশেই এক উন্মাদনা লক্ষ্য করা গেছে। উচ্চ আদালতে মামলা হওয়ায় ফলাফল প্রকাশে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। তিনি জানান, গ্রুপ-সি পদে ২৪১০ জন এবং গ্রুপ-ডি পদে ২৫০০ জনকে নিয়োগের লক্ষ্যে ওই পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। তাতে, লক্ষাধিক প্রত্যাশী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।

তিনি বলেন, গ্রুপ-সি পদে ১:৩ এবং গ্রুপ পদে ১:৬ হারে প্রত্যাশী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। তাতে, প্রায় ২৫ হাজার চাকুরী প্রত্যাশী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। তিনি জানান, গ্রুপ-সি পদে এলডিসি ১৫০০ জন, এগ্রি আসিস্ট্যান্ট ২২ জন, এগ্রি এসিস্ট্যান্ট ৪৪৩ জন, জুনিয়র পাম্প অপারেটর ২৩৬ এবং জুনিয়র মাল্টি টাস্কিং অপারেটর ২০৯ জন সব মিলিয়ে ২৪১০ জন নিয়োগ পাবেন। এছাড়া, গ্রুপ-ডি মাল্টি টাস্কিং স্টাফ পদে ২৫০০ জন নিয়োগ পাবেন।

এদিন তিনি দাবি করেন, রাজনীতির উর্দ্ধে উঠে ওই পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। স্বচ্ছ নিয়োগ নীতির মাধ্যমে কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অথচ, একাংশ কুচক্রি ঘোলা জলে মাছ ধরার চেষ্টা করছেন। সামাজিক মাধ্যমে উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখছেন। তাঁর আহবান, কোন রকম ষড়যন্ত্রে পা দেবেন না। লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই মৌখিক পরীক্ষার ব্যবস্থাও হবে।

এদিন শ্রম মন্ত্রী ভগবান দাস বলেন, পরীক্ষায় সকলেই উত্তীর্ণ হবেন এমনটা কখনোই সম্ভব নয়। তাই, যাঁরা ওই চাকুরীর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হননি তাঁদের হতাশ হওয়ার প্রয়োজন নেই। কারণ, আগামীদিনে আরও অনেক চাকুরীর সুযোগ নিয়ে হাজির হবে ত্রিপুরা সরকার। তাঁর বক্তব্য, বিগত সরকারের জমানায় নিয়োগ নীতিতে তোয়াক্কা না করে কেন্দ্রের নিয়ম উপেক্ষার মধ্য দিয়ে চাকুরী প্রদান করা হয়েছিল। আদালতের রায়ে সমস্ত চাকুরী বাতিল হয়েছে। তিনি বিরোধীদের নিশানা করে বলেন, গ্রুপ-সি এবং গ্রুপ-ডি পদে চাকুরী প্রদানের ক্ষেত্রে মামলার আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছে না ত্রিপুরা সরকার। তাই, সেই মতো প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

তিনি আশ্বস্ত করেন, ডিসেম্বরের তৃতীয় এবং চতুর্থ সপ্তাহের মধ্যে মৌখিক পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা হচ্ছে। এরই মধ্যে সকলের নথিপত্র যাচাই করা হবে। তিনি বলেন, ওই চাকুরী পাওয়ার ক্ষেত্রে পিআরটিসি অগ্রাধিকার পাবে।

এদিকে শ্রম দফতরের সচিব অভিষেক সিং জানিয়েছেন, ২০২১ সালের আগস্ট মাসে গ্রুপ-সি এবং গ্রুপ-ডি পদে প্রায় ১ লক্ষ ২১ হাজার ৫০০ জন পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে প্রায় ২৪ হাজার ৫০০ জন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। এখন মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। এরই মধ্যে সমস্ত নথিপত্র পরীক্ষা করে দেখা হবে। 



Source link