ফের বাড়ল রাজ্যের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, ঊর্ধ্বমুখী পজিটিভিটি রেটও

By | May 28, 2022


Published by: Paramita Paul |    Posted: May 28, 2022 8:43 pm|    Updated: May 28, 2022 8:44 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় ফের বাড়ল রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমণ (Coronavirus)। একইসঙ্গে বাড়ল দৈনিক পজিটিভিটি রেটও। এমন পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞরা বারবার করোনাবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন। বাড়ির বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করতেই হবে, বলছেন চিকিৎসকরা।

শনিবার রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ জন। টেস্টিংয়ের পরিমাণ প্রায় একইরকম হলেও গতকালের থেকে সংক্রমণ বাড়ল কিছুটা। বাড়ল দৈনিক পজিটিভিটি রেটও। ০.২৭ শতাংশ থেকে বেড়ে রাজ্যের পজিটিভিটি রেট দাঁড়াল ০.৪৫ শতাংশ। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনা পজিটিভ হয়েছেন ২০ লক্ষ ১৯ হাজার ২৯১ জন। তবে তার মধ্যে প্রায় ৯৯ শতাংশই করোনা মুক্ত হয়ে গিয়েছেন। গত কয়েক দিনের মতোই এদিনও মারণ ভাইরাসে রাজ্যে কোনও প্রাণহানি ঘটেনি। সব মিলিয়ে এ রাজ্যে মারণ ভাইরাসের বলি মোট ২১ হাজার ২০৩ জন।

[আরও পড়ুন: মন্ত্রী পরেশকন্যা অঙ্কিতার নাম জড়ানোর জের! ইন্টারভিউ স্থগিত কলেজ সার্ভিস কমিশনের]

বুলেটিন বলছে, একদিনে রাজ্যে কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়েছেন ৪১ জন। হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৩৪১ জন। হাসপাতালে ভরতি ২০ জন করোনা আক্রান্ত। এখনও পর্যন্ত বাংলার ১৯ লক্ষ ৯৭ হাজার ৭৪৭ জন ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জয়ী। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৮.৯৩ শতাংশ। এদিকে, বর্তমানে রাজ্যের সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্য়া কমে দাঁড়িয়েছে ৩৪৪ জনে।

কোভিডবিধি উঠে গেলেও সংক্রমণ রুখতে নমুনা পরীক্ষা চলছে। একদিনে ৮ হাজার ৫০১টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত মোট ২ কোটি ৫২ লক্ষ ৮৬ হাজার ৪১৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। টেস্টিংয়ের পাশাপাশি টিকাকরণও চলছে জোরকদমে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে ৭২ হাজার ৪৬৫ জন। তবে করোনা উদ্বেগ না কাটতেই বিভিন্ন দেশে আতঙ্ক বাড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স। যে কারণে রাজ্যের হাসপাতালগুলিকে প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্যদপ্তরের।

[আরও পড়ুন: বিজেপির মিছিল ঘিরে ধুন্ধুমার যাদবপুরে, মাথা ফাটল পুলিশ কর্মীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link