ফের গুলিবৃষ্টি মার্কিন মুলুকে, ক্যালিফোর্নিয়ায় বন্দুকবাজের দাপটে ঝাঁজরা অন্তত ৬ জন

By | April 3, 2022


সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সপ্তাহান্তের আনন্দের রেশ কেটে গেল গুলির আওয়াজে। রবিবার সকালে মার্কিন মুলুকের (USA) ক্যালিফোর্নিয়ার স্যাক্রামেন্টোয় বাসিন্দাদের ঘুম ভাঙল বন্দুকের শব্দে। অন্তত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে গুলিবৃষ্টিতে (Shootout)। জখম কমপক্ষে আরও ৯। স্যাক্রামেন্টো পুলিশের মত, এই ঘটনা বেশ জটিল। কে, কোন কারণে এভাবে গুলি চালিয়েছে, তা স্পষ্ট নয়। স্থানীয় বাসিন্দারাও বন্দুকবাজ সম্পর্কে কোনও তথ্য দিতে পারেননি। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশের চোখে বডসড় জটলা। রাস্তায় পড়ে রয়েছে ৬ টি রক্তাক্ত দেহ। আরও কেউ কেউ আহত। তাঁদের তড়িঘড়ি হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। তবে তাঁদের শারীরিক অবস্থা ঠিক কেমন, তা জানা যায়নি এখনও। পুলিশের অনুমান, রাস্তা গিয়ে বন্দুকবাজ (Gunman) গুলি চালাতে চালাতে যাচ্ছিল। সেসময় যাঁরা ছিলেন, তাঁরা হয় নিহত নয়ত আহত হয়েছেন। তবে এমন কাণ্ডের উৎস কী, তা বুঝতেই পারছেন না দুঁদে গোয়েন্দারা।

[আরও পড়ুন: ‘কোবরাম্যান রাজনীতিতে এখনও আছেন?’, অগ্নিমিত্রার পাশে দাঁড়িয়ে শত্রুঘ্নর কটাক্ষের শিকার মিঠুন]

স্যাক্রামেন্টো পুলিশের প্রধান (Police Chief)ক্যাথি লেস্টার সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছেন, স্থানীয়রাই প্রথমে গুলির শব্দ শুনতে পান। রাস্তায় জড়ো হন। সবাই প্রাণে বাঁচার জন্য সাহায্য চাইছিলেন। এসবের মধ্যেই আততায়ী গা ঢাকা দিয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। বন্দুকবাজ একা নাকি আরও কেউ ছিল, তা নিয়েও সংশয় রয়েছে। আততায়ীদের সম্পর্কে কোনও তথ্যই প্রায় দিতে পারেননি কেউ। যার জেরে মনে করা হচ্ছে, এর মধ্যে কোনও জটিলতা আছে। ঘটনার পর থেকে রেস্তরাঁ, বারে জমজমাট স্যাক্রামেন্টোর রাস্তা শুনসান হয়ে গিয়েছে। বেরি অ্যাসিয়াস নামে এক স্থানীয় বাসিন্দার কথায়, ”আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি, কমবয়সি এক মেয়ের রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তার পাশে বসে এক মেয়ে চিৎকার করে বলছে, ওরা আমার বোনকে মেরে ফেলল। এক মা ছুটতে ছুটতে নিজের ছেলের খোঁজ করছেন। চারপাশে পরিত্রাহি অবস্থা!”

[আরও পড়ুন: আসন্ন উপনির্বাচনের প্রচারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, আগামী সপ্তাহেই আসানসোলে রোড শো]

মার্কিন মুলুকে এ ধরনের ঘটনা নতুন নয়। বন্দুক আইন এখানে একেবারে শিথিল হওয়ায় সকলের হাতেই প্রায় আগ্নেয়াস্ত্র।  যে কোনও কারণে এখানে বন্দুকবাজদের দাপটে প্রাণহানির খবর মেলে প্রায়ই। এবার সেই তালিকায় যোগ হল আরেকটি ঘটনা। 



Source link