নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের

By | January 16, 2023


কলকাতা, ১৬ জানুয়ারি (হি স)। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কী কারণে তিনি দেখা করেছেন, তা নির্দিষ্টভাবে জানা যায়নি।

বিসিসিআই সভাপতি থাকাকালীন সৌরভ একাধিকবার নবান্নে গিয়েছেন। সোমবার বেলা পৌনে চারটে নাগাদ তিনি আসেন নবান্নে। সূত্রের খবর, সেখানে তিনি প্রায় ১২ মিনিট ছিলেন। অবশেষে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেই নবান্ন ছাড়েন তিনি। ইতিমধ্যেই এই বৈঠক নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হতে শুরু করেছে।

ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের দায়িত্ব ছাড়ার পর কেন তিনি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। সূত্রের খবর মুখ্যমন্ত্রী নিজেই নাকি তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। যদিও অপর একটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছে যে সৌরভ তাঁর ব্যক্তিগত কাজের জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

গত বছর ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতি পদে সৌরভের দ্বিতীয়বার বসা নিয়ে যখন বিস্তর জটিলতা তৈরি হয়েছিল, সেইসময় প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে এই ঘটনার জন্য তোপ দাগতে শুরু করেন। পাশাপাশি আইসিসি-র মসনদে সৌরভের যাত্রা যাতে মসৃণ হয়, সেজন্য নরেন্দ্র মোদীর কাছে আর্জিও জানিয়েছিলেন।

তারও আগে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় যখন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। সেই সময় বাংলার একটি সংবাদমাধ্যমকে সৌরভ বলেছিলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী আমার খুব কাছের একজন মানুষ। বলতে পারেন, উনি আসলেই আমার দিদি। উনি আগে আমার দিদি, পরে বাংলার চিফ মিনিস্টার। ওঁর শুভেচ্ছা পেয়েছি। খুব ভালোবাসি।’

বিসিসিআই থেকে সরে এলেও সৌরভ আপাতত আইপিএল টুর্নামেন্টে বড় পদ আলো করে ফিরে এসেছেন। সম্প্রতি দিল্লি ক্যাপিটালস দলের পক্ষ থেকে তাঁকে ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট পদে নিয়োগ করা হয়েছে। এই নয়া ইনিংসে সৌরভ কেমন পারফরম্যান্স করে এখন সেটাই দেখার।

প্রসঙ্গত, ২০২০-তে কলকাতায় ইজেডসিসি–তে আয়োজিত বিজেপি–র দুর্গোৎসবে নৃত্য পরিবেশন করেন সৌরভ-জায়া ডোনা। সে সময় সৌরভের সঙ্গে বিজেপি–র শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে সৌরভের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগকে ঘিরে রাজ্য রাজনীতিতে যথেষ্ট জল্পনা ছড়ায়। তাই বিজেপি–র দুর্গাপুজো ডোনার অনুষ্ঠান বেশ তাৎর্যপূর্ণ বলে মনে করছিলেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এর পর গত বিধানসভা ভোটের আগে সৌরভকে নিয়ে বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এবং মমতার মধ্যে রীতিমত দড়ি টানাটানির মত খেলা হয়। সূত্রের খবর, সৌরভের অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির পর কেমন আছেন, তার খোঁজ নিতে ’২১-এর ৩ জানুয়ারি তাঁর সহধর্মিনী ডোনাকে ফোন করেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শেষ পর্যন্ত বিজেপি-র হয়ে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ কোনও ভূমিকায় সৌরভকে দেখা যায়নি। রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, এর মাশুল দিতে হচ্ছে সৌরভকে।

বাংলার দুর্গাপুজোর বিশ্বজনীন স্বীকৃতিকে উদযাপনে রাজ্য সরকারের অনুষ্ঠানে ইউনেস্কোর প্রতিনিধিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন ভাষণ দিয়েছিলেন বাংলার ‘‌দাদা’‌। যদিও এর পর গত ২৪ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রের তরফে কলকাতা জাদুঘরের লনে কেন্দ্রীয় সরকারের অনুষ্ঠানে সৌরভ না থাকলেও ছিলেন ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়। অনুষ্ঠানের সব থেকে বড় চমক ছিল তাঁর নাচের দল দীক্ষা মঞ্জুরীর। নবদুর্গা থিমের ওপর নৃত্য পরিবেশন করেন ডোনা–সহ তাঁর দলের নৃত্যশিল্পীরা।

এই রকম পরিস্থিতিতে নবান্নে ফের মমতা-সৌরভ বৈঠক উস্কে দিল আবালবৃদ্ধবণিতার কৌতূহল।



Source link