নজরে ছিল কম বয়সি যুবকরা, মহিলার এমন কাজে কপালে হাত সকলের

By | May 26, 2022


আর্থিক প্ররোচনার অভিযোগ

(নিজস্ব ছবি)

Bankura: সরকারি দফতরে চাকরি দেওয়ার নাম করে বেকার যুবকদের কাছ থেকে লক্ষ-লক্ষ টাকা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে বাঁকুড়ার খাতড়ায় গ্রেফতার হলেন এক মহিলা।

বাঁকুড়া: সরকারি দফতরে চাকরি দেবেন বলেছিলেন। সেই মোতাবেক লক্ষ-লক্ষ টাকাও নিয়েছিলেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হল না। উল্টে গ্রেফতার হতে হল মহিলাকে।

সরকারি দফতরে চাকরি দেওয়ার নাম করে বেকার যুবকদের কাছ থেকে লক্ষ-লক্ষ টাকা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে বাঁকুড়ার খাতড়ায় গ্রেফতার হলেন এক মহিলা। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত মহিলার নাম মেঘমালা ভট্টাচার্য চন্দ্র। বাড়ি বাঁকুড়ার খাতড়া শহরের রাজাপাড়া-হাটতলা এলাকায়। আজ ধৃতকে খাতড়া মহকুমা আদালতে পেশ করা হলে ধৃত মহিলাকে আগামী চার জুন পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতবছর ৩ এপ্রিল ২০২১ সালে খাতড়া থানায় লিখিত অভিযোগ জানান এক যুবক। ওই যুবক জানান, সরকারি দফতরে চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রাক্তন সেনাকর্মী বর্তমানে প্রাথমিক শিক্ষক অঞ্জন কুমার চন্দ্র ও তাঁর স্ত্রী মেঘমালা ভট্টাচার্য চন্দ্র সরকারি চাকরি দেওয়ার নাম করে মোট আট লক্ষ টাকা নিয়েছেন। একই ভাবে জেলার আরও বেশ কয়েকজন যুবকের কাছ থেকে ওই দম্পতি টাকা নিয়েছেন বলেও অভিযোগ ওঠে।

দম্পতি এক যুবককে খাদ্য দফতরের নিয়োগপত্র দিলেও পরবর্তীতে তা ভুয়ো বলে জানা যায়। এই অভিযোগ দায়ের হতেই গা ঢাকা দেয় ওই দম্পতি। পরবর্তীতে খাতড়া থানার পুলিশ অঞ্জন কুমার চন্দ্রকে গ্রেফতার করে। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পেলেও গতকাল বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে ওই ঘটনায় অপর অভিযুক্ত মেঘমালা ভট্টাচার্য চন্দ্রকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবী গোটা ঘটনাকে চক্রান্ত বলে দাবি করেছেন।

এই খবরটিও পড়ুন



ওই মহিলার আইনজীবী বলেন, ‘ওনার বিরুদ্ধে ৪২০ ধারাতে মামলা রজু হয়েছে। আজকে ওনাকে কোর্টে নিয়ে যাওয়া হয়। জামিনের ব্যবস্থা করি। যদিও, জামিন মঞ্জুর করেনি। জেল হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এও বলব উনি নির্দোষ। উনি একজন গৃহবধূ। একজন প্রতিবন্ধী সন্তান রয়েছেন। উনি আসলে ষড়যন্ত্রের শিকার।’



Source link