ঝড়ের রাতে দুই বিড়ালছানাকে আগলে রাখল মা মুরগি, ভাইরাল ছবি, মুগ্ধ নেট দুনিয়া

By | June 2, 2022


সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মানুষের কিছুতেই মনে থাকে না, এই পৃথিবীটা মানুষের একার না। বরং মানুষের মতো কোটি কোটি প্রাণীর আবাসভূমি। তাদেরও সমান অধিকার। অন্য জীবজন্তুরা সম্ভবত সেকথা ভোলেনি আজ অবধি, তাই এমন কাণ্ড ঘটতে পারে। ভয়ঙ্কর ঝড়ে বিপন্ন দুই বিড়ালছানা (Kittens)। আর তাদের আশ্রয় দিল একটি মুরগি (Hen)। সম্প্রতি সেই মিষ্টি দৃশ্যের ছবি ভাইরাল (Viral) হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। নেটিজেনরা মুগ্ধ ছবি দেখে। সকলেই বলছেন, মানুষ ওদের থেকে শিক্ষা নিক।

দুই বিড়ালছানা ও মুরগিটির ছবি পোস্ট করা হয় বুটেনগেবিডেনের (Buitengebieden) টুইটার (Twitter) অ্যাকাউন্ট থেকে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে বড় চেহারার ওই মুরগির পেটের কাছে জড়োসড়ো দু’টি বিড়ালছানা। তাদের চোখেমুখে ভয়ে, আশ্রয়ের খোঁজ। আর নিজের শরীর দিয়ে ছানা দু’টিকে আগলে রেখেছে মুরগিটি। জানা গিয়েছে, ঝড়ের সময় ওইভাবে বিড়ালছানা দু’টিকে উষ্ণতা দিয়ে আগলে রেখেছিল মুরগিটি। ছবির ক্যাপশানে লেখা হয়েছে, “ঝড়ের সময় দুই বিড়ালছানাকে আগলে রেখেছি মুরগি।”

[আরও পড়ুন: কোনও পুরুষকে নয়, ভালবেসে নিজেকেই বিয়ে করছেন এই তরুণী, একা যাবেন হানিমুনেও]

পোস্ট করা মাত্র মুরগি ও দুই বিড়ালছানার ছবি ভাইরাল হয়। ১ লক্ষের বেশি মানুষ লাইক করেছেন। ৮ হাজারের বেশি রিটুইট হয়েছে। কেউ লিখেছেন, “মা তো মা-ই হয়।” একজন লিখেছেন, “শক্তিশালী দুর্বলকে আশ্রয় দিয়েছে। দুই আলাদা প্রজাতি একে অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল। প্রাণীদের থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত মানুষের।”

[আরও পড়ুন: প্রশিক্ষণ ছাড়াই বিমান অবতরণ পাইলটের! বিমান সংস্থাকে মোটা অঙ্কের জরিমানা]

উল্লেখ্য, বুটেনগেবিডেন সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত বিভিন্ন ধরনের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে থাকে। অন্যরকম সেই সব ছবি ও ভিডিও সাধারণত ভাইরাল হয়। ক’দিন আগেই তাদের আপলোড করা একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। যেখানে এক মহিলাকে তরমুজের উপর বিচিত্র শিল্পকর্ম করতে দেখা গিয়েছিল। সাড়ে সাত লক্ষের উপর ভিউ হয় ভিডিওটির। ৩৫ হাজারের বেশি লাইক পড়ে। তথাপি এবারের ছবিটির সঙ্গে তার তুলনা হয় না। যখন রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ চলছে, দেশে দেশে বাড়ছে ধর্ম জাতপাত নিয়ে হানাহানি, তখন দু’টি আলাদা প্রজাতির প্রাণীর একে অপরের আশ্রয় হয়ে ওঠে এক গভীর বার্তা দেয়।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link