ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে লেখাপড়ার সাথে সাথে উদ্ভাবনীশক্তি ও শিল্পকলা চর্চার প্রসার ঘটুক : শিক্ষামন্ত্রী

By | November 25, 2022


আগরতলা, ২৫ নভেম্বর৷৷ ছাত্রছাত্রীরা হল দেশের ভবিষ্যৎ৷ তারা সুুনাগরিক হলে দেশের কল্যাণ হবে৷ তবে পঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি চাই বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও বিভিন্ন শিল্পকলার চর্চা৷ তবেই এক ভারত, শ্রেষ্ঠ ভারত এবং এক ত্রিপুরা, শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা গড়ে উঠবে৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ ভারত শিক্ষা, পরম্পরা সংস্কৃতি ও আধুনিকতায় একদিন বিশ্বে শ্রেষ্ঠ স্থান দখল করবে৷ আজ শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ আগরতলা টাউনহলে রাজ্যভিত্তিক দু’দিনব্যাপী কলা উৎসবের সমাপ্তি তথা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে একথা বলেন৷
অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ বলেন, রাজ্য সরকার চায় ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে লেখাপড়ার সাথে সাথে উদ্ভাবনীশক্তি ও শিল্পকলা চর্চার প্রসার ঘটুক৷ তাই ছাত্রছাত্রীদের গুণগত শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে সরকার অগ্রাধিকার দিয়েছে৷ এই লক্ষ্যে শিক্ষা দপ্তর প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত অঙ্ক ও বিজ্ঞানে মেধা অন্বেষণ, বছর বাঁচাও, সুুপার থার্টি, বন্দে ত্রিপুরা চ্যানেল, নিপুন ত্রিপুরা, মিশন মুকুল ইত্যাদি প্রকল্প চালু করেছে৷ প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত বিনামূল্যে ওয়ার্ক বুক দেওয়া হচ্ছে৷ ১২৫টি মিশন বিদ্যাজ্যোতি সুকল চালু করা হয়েছে৷
শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ বলেন, ছাত্রছাত্রীদের জন্য বৃত্তিমূলক শিক্ষার ক্ষেত্রে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে৷ এতে সাফল্যও আসছে৷ এবছর ধর্মনগরের গোল্ডেন ভ্যালী বিদ্যালয় উত্তর-পূর্বাঞ্চল নাটক প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান দখল করেছে৷ শিশুবিহার সুকলের ছাত্রী মধুরিমা দাস পিপিকিট তৈরী করে দিল্লি থেকে দ্বিতীয় পুরস্কার এনেছে৷
অনুষ্ঠানে সমগ্র শিক্ষা অভিযানের স্টেট প্রজেক্ট ডিরেক্টর বিম্বিসার ভট্টাচার্য জানান, ২০১৯-২০ অর্থবছর থেকে রাজ্য দেশের মধ্যে পারফরর্মিং ইনডেক্সে গ্রেড ওয়ান-এ রয়েছে৷ রাজ্যস্তরের এই কলা উৎসবে ৮টি জেলা থেকে ১০টি ইভেন্টে ১৬০ জন ছাত্রছাত্রী অংশ নিয়েছে৷ অনুষ্ঠানে প্রতিটি ইভেন্টের ১ম, ২য় ও ৩য় স্থানাধিকারীদের যথাক্রমে ৩০০০ টাকা, ২০০০ টাকা, ১০০০ টাকা অর্থিক পুরস্কার, শংসাপত্র ও স্মারক দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়৷ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ভোকাল ক্লাসিক্যাল মিউজিক প্রতিযোগিতায় সিপাহীজলা জেলার প্রথম স্থানাধিকারী মিতা গোস্বামীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন৷ তাছাড়াও অন্যান্য বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়৷ উল্লেখ্য, বিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তরের সমগ্র শিক্ষা অভিযান দু’দিনব্যাপী রাজ্যভিত্তিক কলা উৎসবের আয়োজন করে৷



Source link