কাজলের সঙ্গে কাজের সুযোগ হাতছাড়া, বাংলা সিরিয়াল থেকে সরে এলেন এই বাঙালি অভিনেতা

By | August 6, 2022


Rahul Dev Bose: নিজেকে আরও ভাল অভিনেতা হিসেবে প্রশিক্ষিত করে তিনি পাড়ি দিতে চান মুম্বইয়ে। এ ব্যাপারে TV9 বাংলাকে কী বললেন রাহুল?

রাহুল দেব বসু।

স্নেহা সেনগুপ্ত

তরুণ অভিনেতা। ঝকঝকে, সৌম্য চেহারা। একের পর-এক বাংলা সিরিয়ালে অভিনয় করে গিয়েছেন। গতে বাঁধা চরিত্রে তাঁকে কোনওদিনই কাস্ট করা হয়নি। ধারাবাহিকের মুখ্য অভিনেতা হলেও, তিনি কাস্ট হয়েছেন এক্কেবারে অন্য ধাঁচের চরিত্রে। তাঁর হিরো চরিত্রেও মধ্যে আনা হয়েছিল হাল্কা ভিলেন টাচ। তিনি ভাল অভিনেতা বলেই হয়তো এই এক্সপেরিমেন্ট। সর্বজনবিদিত, যিনি ভাল অভিনেতা, তাঁকে দিয়েই খলচরিত্র করাতে চান নির্মাতারা। ফলে রাহুল দেব বসুর ভাগ্যে সেরকমই চরিত্র এসেছে বারংবার। তবে এই মুহূর্তে হাতে খুব বড় কাজ নেই রাহুলের। নেই বললে ভুল হবে। আছে। তবে তিনি করছেন না। তিনি বিরতি নিয়েছেন। আসন্ন বাংলা সিরিয়াল ‘নবাব নন্দিনী’তে ক্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেছেন একদা লিড অভিনেতা। কিন্তু বাংলা সিরিয়ালে পুরোদস্তুর অভিনয় তিনি কিছুতেই করতে আগ্রহী নন। তাঁর লক্ষ্য অন্য। নিজেকে আরও ভাল অভিনেতা হিসেবে প্রশিক্ষিত করে তিনি পাড়ি দিতে চান মুম্বইয়ে। এ ব্যাপারে TV9 বাংলাকে কী বললেন রাহুল?

সামনে কী কাজ আছে?

রাহুল: আমি তো এখন বাংলা সিরিয়ালে কাজ করছি না সেই অর্থে। ‘নবাব নন্দিনী’তে ক্যামিও আছে।

সে কী? আপনি ক্যামিও করছেন… আর হঠাৎ বাংলা সিরিয়াল ছাড়লেন কেন?

রাহুল: অনেকগুলো কারণ আছে। আমি অন্য ধরনের কাজ করতে চাইছি। নিজেকে অভিনেতা হিসেবে আরও উন্নত করে তুলতে চাইছি। তাই এই বিরতি।

প্রস্তুতি মানেই পরিকল্পনা… নতুন কী আসতে চলেছে?

রাহুল: মুম্বইয়ে যেতে চাই। ছবিতেই কাজ করতে চাই আপাতত। সেটা টলিউডে হতে পারে, আবার বলিউডেও হতে পারে।

কাজের অফার এসেছে?

রাহুল: এসেছিল জানেন। একটা বাংলা সিরিয়ালে কাজ করছিলাম বলে কাজটা করতে পারিনি। কাজল আগরওয়ালের সঙ্গে ছবির অফার ছিল। কাজটা করতে পারলাম না বলে বেশ কিছুদিন মনের কষ্ট চেপে রেখেছিলাম। তারপর নিজেই সিদ্ধান্ত নিলাম, এটা চলতে পারে না। আমাকে একটা সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। এভাবে কাজ হাতছাড়া হলে হবে না। তাই সিরিয়াল থেকে সরে এলাম।

বাংলা ছবি ‘আয় খুকু আয়’তেও তো আপনি ছিলেন?

রাহুল: হ্যাঁ ছিলাম তো। সেখানেও আমাকে দুষ্টু ছেলে হিসেবেই দেখানো হয়েছিল।

বারবারই আপনাকে দুষ্টু ছেলে হিসেবেই দেখানো হয়…

রাহুল: এই স্টিরিওটাইপটা ভাঙতে চাই। বিক্রম চট্টোপাধ্যায় ও শোলাঙ্কি রায়ের ‘শহরের উষ্ণতম দিনে’-তেও কাজ করলাম। সেটা কিন্তু ভাল ছেলের চরিত্র।

আপনি তো দামিনী বেনি বসুর ছাত্র?

রাহুল: একেবারেই। এই মুহূর্তে বেনিদির কাছেই আমার ক্লাস চলছে। তিনি দারুণ অভিনেত্রী। আমাদের জেনারেশনের অনেকেই তাঁর কাছে ট্রেনিং নিয়েছেন। আমিও নিচ্ছি। তিনিই আমাকে তৈরি করছেন।

লোকে বলে, অভিনেতাদের কাজ থামালে চলে না, অনিশ্চিত পেশা… আপনি যে বিরতি নিলেন, অর্থের সমস্যা হচ্ছে না?

রাহুল: গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। আসলে আমি শুরু থেকেই খুব টাকা জমাতাম। উল্টোপাল্টা ভাবে চলি না। উল্টোপাল্টা খরচ করি না। আমার জীবনের একটা নির্দিষ্ট লক্ষ্য আছে। সেই দিকেই তাকিয়ে থাকি। ভুলভাল খরচ করে অনিশ্চয়তা ডেকে আনিনি কোনওদিন। এই যে নিজেকে আরও ভাল অভিনেতা হিসেবে তৈরি করার চেষ্টা করছি, তাও কিন্তু সম্পূর্ণ খরচ করে। সেই জমানো টাকা আমার কাছে আছে… ফলে মানসিক ভাবে আমি শান্তিতে।

এই খবরটিও পড়ুন



এই মুহূর্তে মোড় ঘোরানো চরিত্রের অপেক্ষায় আছেন রাহুল। স্বপ্ন দেখছেন আরও বড় হওয়ার…



Source link