কলমচৌড়ায় আশি হাজার গাঁজা গাছ ধবংস করল বিএসএফ ও পুলিশ

By | November 30, 2022


নিজস্ব প্রতিনিধি, আগরতলা, ৩০ নভেম্বর৷৷ কলমচৌড়া থানাধীন ভেলুয়ারচর একটি ইটভাটা এলাকায় ৮০ হাজার গাঁজার গাছ ধবংস করল পুলিশ ও সীমান্তরক্ষী বাহিনী৷ সরকারি বনাঞ্চলকে হাতিয়ার বানিয়ে তড় তড় করে বেড়ে চলছে গাঁজার চাষ৷সিপাহীজলা জেলার সোনামুড়া মহকুমা গাজার চাষ এবং গাজা পাচার বাণিজ্য  যেন থেমে নেই৷ পাশাপাশি থেমে নেই পুলিশ ও সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনীর একের পর এক গাঁজা বাগান ধবংসের প্রক্রিয়া৷ সোনামুড়া মহাকুমার চার থানা এলাকা সোনামুড়া, মেলাঘর,যাত্রাপুর এবং কলমচৌড়া এসব থানা এলাকা গুলোতে চাষ করা হয়৷এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গাঁজা চাষ করা হয় সোনামুড়া থানা এলাকায়৷বাকি তিন থানা এলাকায় ব্যক্তিগত জোত জমি সহ বনভূমিতে গাঁজা চাষ করে আসছে৷ সোনামুড়া মহাকুমা গাঁজা চাষের মৃগয়াক্ষেত্র বলে পরিচিত গোটা রাজ্যে৷ বিশেষ করে সোনামুড়া মহকুমার কমলনগর,ঘাঁটিঘর,লচারবাড়ী,আনন্দনগর, মতিনগর,বাতাদোলা এই সব জায়গা গুলোতে গাঁজার রমরমা রয়েছে৷বুধবার সকাল ৯ ঘটিকা থেকে দুপুর ১ ঘটিকা পর্যন্ত টানা কয়েক ঘন্টা অভিযান চালিয়ে কলমচৌড়া থানাদিন ভেলুয়ারচর এলাকায় প্রায় ৫ হেক্টর অর্থাৎ গ্রামের ভাষায় ৩০কানি ও ৮টি প্লটে বিশাল গাঁজা বাগানের মোট ৮০ হাজার গাঁজার গাছ প্রথমে কেটে এক সাথে করে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে ধবংস করা হয়৷তার সাথে সাথে গাঁজা বাগান পাহারা দেওয়ার জন্য চাষীরা যে টংঘরগুলি বানিয়ে আশ্রয় নিতেন এমন ধরনের ছয়টি টং ঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়৷এই গাঁজা গাছগুলির উপযুক্ত সময়ে ফলন আসলে বাজারমূল্য হবে প্রায় ৩০লক্ষ টাকা হবে বলে জানান প্রশাসনের অধিকারিকরা৷অবৈধ গাজা চাষের খবর কলমচৌড়া থানার ওসি প্রশান্ত কুমার দে ও ১৫০নং ব্যাটেলিয়ান বিএসএফ ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে ছিল ভেলুয়ারচর এলাকায় প্রচুর পরিমানে গাঁজা চাষ করে গাঁজা চাষীরা৷



Source link